সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ৯ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

 

সিলেট প্রতিনিধি::সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে ৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। বৃহস্পতিবার (২৮ জুন) মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিনে ৭ জন ও আগের দিন বুধবার ২ জন মেয়র প্রাার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই শেষ হয় মনোনয়নপত্র দাখিল।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের সর্থনে একক প্রার্থী সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

তবে বিএনপির সমর্থনে সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী মনোনয়নপত্র জমা দিলেও বিদ্রোহী প্রার্থী সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এছাড়া ২০ দলীয় জোটের শরিক দল জামায়াত ইসলামীর সিলেট মহানগরের আমীর এহসানুল মাহবুব জুবায়ের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

এছাড়াও সিপিবি-বাসদের আবু জাফর, ইসলামী আন্দোলন প্রার্থী ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী জসিম উদ্দিন, এহসানুল হক তাহের ও মোক্তাদির হোসেন মনোনয়নপত্র জমা দেন।

প্রসঙ্গত, সিলেট সিটি করপোরেশনে এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হচ্ছে। সিটি করপোরেশনের মোট ৩ লক্ষ ২১ হাজার ৭৩২ জন ভোটার আগামী ৩০ জুলাই তাদের পছন্দের প্রার্থীকে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করবেন।

আরিফের পদত্যাগ ও মনোনয়ন দাখিল আসন্ন সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য বৃহস্পতিবার বেলা ১টা ৩ মিনিটে সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ জেড এম নুরুল হকের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। পদত্যাগপত্র জমা দেয়ার পূর্বে নগর ভবনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন আরিফ।
এ সময় তিনি বলেন, ‘গত সিটি নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই বারবার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়েছি। দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলাম। যত দিন দায়িত্বে ছিলাম, তত দিন মানুষের কল্যাণে কাজ করেছি। তাই আসছে নির্বাচনে মানুষ আমাকে ভোট দেবে বলে বিশ্বাস করি ‘। এসময় তিনি দায়িত্ব পালনকালে ভুল-ত্রুটির জন্য নগরবাসীর কাছে ক্ষমা প্রার্থণা করেন।
পদত্যাহপত্র জমা দিয়ে আরিফুল হক চৌধুরী হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজার জিয়ারতের উদ্দেশ্যে নগর ভবর ত্যাগ করেন।
মাজার জিয়ারতের পর তিনি নির্বাচন কমিশনের কার্যালয়ে গিয়ে মনোময়নপত্র জমা দেবেন।
বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি। এর আগে বেলা ১টার দিকে মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করেন আরিফ। মনোনয়ন দাখিলের আগে হযরত শাহজালাল (রহ:) মাজার জিয়ারত করেন তিনি।
মনোনয়ন দাখিল শেষে আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘সিলেট মহানগরীর ভোটাররা আমাকে আবারও মেয়র পদে দেখতে চায়। যদি নির্বাচন যথাযথভাবে অনুষ্ঠিত হয় তাহলে ধানের শীষের বিজয় সুনিশ্চিত।’ এছাড়াও দলের নেতাকর্মীসহ সিলেটের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের ধানের শীষ প্রতীককে বিজয়ী করার জন্য আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘বিএনপি একটি বৃহৎ দল। এখানে মনোনয়নের লড়াই থাকবে এটা স্বাভাবিক। তবে সিলেট বিএনপি সবসময় ঐক্যবদ্ধ।’
মনোনয়নপত্র জমাকালে কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক, জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের শামিম, মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন, ডা. শাহরিয়ার হোসেন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মনোনয়ন দাখিল করলেন কামরান ঃ সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়ন জমা দেন তিনি। এসময় হাজারো নেতাকর্মীদের নৌকা ও কামরানের নামে শ্লোগান দেন।
মনোনয়নপত্র জমাকালে কামরানের সাথে উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ প্রমুখ।
মনোনয়নপত্র জমাদানের পূর্বে কামরানের বাসায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পরে তিনি মানিক পীর (র.) গোরস্থানে মা-বাবার কবর জিয়ারত করেন। কবর জিয়ারতের পর হাজারো নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে মনোনয়ন জমাদানের উদ্দেশ্যে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে যান সাবেক মেয়র কামরান


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *