পরীক্ষাকেন্দ্র পুনঃবহাল এর দাবীতে চট্রগ্রাম আইএইচটি’র ছাত্র/ছাত্রীদের বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্টিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
চট্রগ্রাম শহরে অবস্থিত ইন্সটিটিউট অব হেলথ্ টেকনোলজি(আইএইচটি)তে পরীক্ষা কেন্দ্র পুনঃবহাল, শিক্ষক স্বল্পতা, ল্যাব সরঞ্জাম ও অন্যান্য সংকটের দাবীতে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ইন্সিটিটিউটের সামনে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ সমাবেশ করেন।২০০৮সালে এই প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠিত হলে সেটি ২০১০সাল থেকে আনুষ্ঠিকভাবে যাত্রা শুরু করেন। তৎকালীন বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই প্রতিষ্ঠানটির শুভ উদ্বোধন করেন। স্বাস্থ্য সেবার মানকে ত্বরান্বিত করতে যেখানে সরকার অক্লান্ত পরিশ্রম ও বাজেট প্রনায়ণ করছে। সেখানে এই প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন যাবৎ খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলছে।এই প্রতিষ্ঠানটিতে শিক্ষক ও কর্মচারীসহ ১৮০টি পদ থাকলে সেখানে অল্প সংখ্যক জনবল দিয়ে এই প্রতিষ্ঠানটি চলছে। সরকারী গেজেট অনুযায়ী যেখানে ৬৮জন শিক্ষক থাকার কথা সেখানে বর্তমানে সরকারীভাবে ৪জন শিক্ষক ও ১০/১২জন অতিথি শিক্ষক দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির পাঠদান কার্যক্রম চলছে। যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অপ্রতুল। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানে ৭টি অনুষদে প্রায় ১১শ’ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। দীর্ঘদিন যাবৎ এই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিয়ে আসলেও এবছর হঠাৎ করে শিক্ষার্থীরা জানতে পারে যে এই কেন্দ্রের বাইরে তাদের পরীক্ষা দিতে হবে। এতে করে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। তাই প্রতিষ্ঠানের সকল অনুষদের শিক্ষার্থীবৃন্দ পরীক্ষা কেন্দ্র পুনঃবহাল রাখার দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। এই বিষয়ে ছাত্র আন্দোলনের মুখপাত্র মেহেদী হাসান জানাই, “আমরা কেন সরকারী প্রতিষ্ঠান বাদ দিয়ে বে-সরকারী প্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা দিতে যাবো। অনতিবিলম্বে এই কেন্দ্র ফিরে আনা না হলে আমারা কঠোর আন্দোলনের ডাক দিবো।” আইএইচটি’র অধ্যক্ষ ডাঃ মাহফুজুল হক এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, “স্টেট মেডিকেল ফ্যাকাল্টি’র সিদ্ধান্তে কেন্দ্র পরিবর্তন হয়েছে। কেন্দ্রের নিরাপত্তাসহ অন্যান্য বিষয় বিবেচনা করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কেন্দ্র পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানাগেছে। আমি কেন্দ্র ফিরিয়ে আনার জোর চেষ্ঠা চালাচ্ছি।”


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *