নেছারাবাদ (স্বরুপকাঠীতে) আকলম কাজী বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি ঘটনা ঘটে

 

সুমন খান বরিশাল স্বরুপকাঠী প্রতিনিধি ঃ
স্বরুপকাঠীতে আকলম কাজী বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ৮ জুলাই মঙ্গলবার রাত দুইটার দিকে পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের আকলম কাজী বাড়ীর কাজী জাকির হোসেন পান্নার বাড়ীতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতরা বিল্ডিং এর পিছনের গ্রিল কেটে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে। ঘরের মধ্যে সকলের হাত-পা বেধে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে নগদ কয়েক লক্ষ টাকা ও মালামাল নিয়ে যায়। ডাকাতি হওয়া ওই পরিবারের কর্তা কাজী জাকির হোসেন জানায়, ডাকাতরা দলে প্রায় ১০-১২ জনের মত ছিল। তাদের মধ্যে ৯জন ডাকাত ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে এদের মধ্যে ৩ জন ডাকাত আমাদের হাত পা বাঁধা অবস্থায় ধারালো অস্ত্র নিয়ে পাহারায় ছিল। অন্যরা ঘরের স্টিলের আলমারী, ওয়ারড্রপ ভেঙ্গে নগদ ৩,৩৫,৩৫০/- টাকা এবং ১৫ ভরির মত স্বর্নালংকার, মোবাইল ফোন, বিদেশী টর্চ লাইট সহ প্রায় ১২ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায়। এ সময় কাজী জাকিরে হোসেনের ছেলে মোঃ সিয়াকে ডাকাতদের অস্ত্রের আঘাতে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। প্রায় দেড় ঘন্টা যাবৎ ডাকাতরা ঘরের মধ্যের আসবাবপত্র ভাংচুর করে টাকা ও মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। কাজী জাকির আরও জানায় আমাদের ডাক চিৎকারে আস পাশের লোকজন আসে এবং ঘটনা দেখে।
ডাকাতির সংবাদ পেলে পিরোজপুরের পুলিশ সুপার মোঃ সালাম কবির ঘটনা স্থল পরিদর্শণ করেছেন। এসময় তিনি বলেছেন ডাকাতরা যেই হোক তাদের ধরা পড়তেই হবে। এ সময় তার সাথে ছিলেন নেছারাবাদ স্বরুপকাঠীর সার্কেলের এ এস পি কাজী শাহনেওয়াজ, নেছারাবাদ থানা ইনচার্জ মোঃ তারিকুল ইসলাম। এ ঘটনার নেছারাবাদ থানায় একটি ডাকাতি মামলার হয়েছে বলে জানা যায়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *